বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন
  • ৯ কার্তিক, ১৪২৪
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৯ জানুয়ারি ২০১৭

ভূমিকম্প মোকাবেলায় জনসচেতনতার কোন বিকল্প নেই


প্রকাশন তারিখ : 2017-01-19

ভূমিকম্প বিষয়ক এক জনসচেতনতামূলক প্রচারাভিযানে বক্তারা বলেছেন,ভূমিকম্প এমন এক দুর্যোগ যা, কোন পূর্বাভাস না দিয়ে আসে। এ ধরণের দুর্যোগ মোকাবেলায় জনসচেতনতার কোন বিকল্প নেই।
তারা বলেন, ভূমিকম্প মানেই আতঙ্ক,এমন ভাবার দরকার নেই। এ আতংককে জয় করতে হবে। ভূমিকম্পের সময় করণীয় কি তা সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারণা থাকলে এ থেকে সতর্ক হওয়া যায়। ভূমিকম্প আতংক থেকে মানুষকে বের করে আনতে হবে।
আজ রাজধানীর খামারবাড়ি কৃষিবিদ ইনিস্টিটিউট অডিটোরিয়ামে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রণালয় এবং ইউএনডিপির যৌথ উদ্যোগে জাতীয় ভূমিকম্প প্রস্তুতির জনসচেতনতামূলক প্রচারাভিযানের উদ্বোধনকালে বক্তারা এ কথা বলেন।
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রণালয়ের সচিব শাহ কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে একই মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সত্যব্রত সাহা,দুর্যোগ ব্যবস্থ্যাপনা বিভাগের মহাপরিচালক রিয়াজ আহমেদ ও ইউএনডিপির কান্ট্রি ডিরেক্টার সুদীপ্ত মুখার্জি বক্তৃতা করেন।
রিয়াজ আহমেদ বলেন, বাংলাদেশ ভূমিকম্পের ঝুঁকিতে রয়েছে। এটা অবহেলার বিষয় নয়। সর্বস্তরের মানুষকে এ বিষয়ে করণীয় কি,তা নিয়ে সতর্ক ও সচেতন করতে হবে।
ভূমিকম্পকে গুরুত্বের সাথে নিতে হবে এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন,বর্তমান সরকার ভূমিকম্প বিষয়ে নানা পদক্ষেপ নিয়েছে। ২৫০ কোটি টাকার ভারী যন্ত্রপাতি কিনেছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এ বিষয়ে সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।
দেশের ৬৪ জেলা ও ৪৯০ টি উপজেলায় সম্প্রতি আয়োজিত উন্নয়ন মেলায় বিনামূল্যে ভূমিকম্পের সতর্কতা বিষয়ে লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে। কিছু হাসপাতালের চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণ দিয়েছে।
ভূমিকম্পকে মোকাবেলা করতে পাইলিংয়ের মাধ্যমে বাড়ি নির্মাণ,বিল্ডিংকোডের যথাযথ অনুসরণ ও বাস্তবায়ন করলে ভূমিকম্পের ঝুঁকি অনেকাংশে রোধ করা সম্ভব হবে বলেও উল্লেখ করেন মহাপরিচালক।