বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন
  • ৩০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৪
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৩rd এপ্রিল ২০১৭

শ্রীলংকার অপয়া ভেন্যুতে টি-২০ সিরিজের মিশন শুরু করছে বাংলাদেশ


প্রকাশন তারিখ : 2017-04-03

টেস্ট ও ওয়ানডের পর এবার শ্রীলংকার বিপক্ষে টুয়েন্টি টুয়েন্টি মিশন শুরু করছে বাংলাদেশ। ছোট ফরম্যাটে শ্রীলংকার অপয়া ভেন্যু কলম্বোর আর প্রেমাদাসা আগামীকাল দুই ম্যাচের টি-২০ সিরিজের প্রথমটি অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় শুরু হবে সিরিজের প্রথম টি-২০। ওয়ানডের আক্ষেপ ঘোচাঁতে টি-২০ সিরিজ জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবে মাশরাফির দল। শ্রীলংকারও লক্ষ্য সিরিজ জয়।
টেস্ট সিরিজ দিয়ে এবারের শ্রীলংকা সফর শুরু করেছিলো বাংলাদেশ। বড় ফরম্যাটের প্রথম ম্যাচ হারলেও, দ্বিতীয়টি জিতে নিজেদের শততম টেস্ট স্মরনীয় করে রাখে টাইগাররা। ফলে দুই ম্যাচের সিরিজ ১-১ সমতায় শেষ হয়।
টেস্ট সিরিজ ড্র করার স্মৃতি নিয়ে শ্রীলংকার বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু করে বাংলাদেশ। সিরিজের শুরুটা চমৎকারই হয়েছিলো টাইগারদের। ৯০ রানের বড় জয়ে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় টাইগাররা। দ্বিতীয় ওয়ানডে শেষেও ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে ছিলো বাংলাদেশ। কারন দ্বিতীয় ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়ে যায়।
তবে তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে নিজেদের আর মেলে ধরতে পারেনি বাংলাদেশ। ৭০ রানে ম্যাচ হেরে সিরিজ জয়ের সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করে টাইগাররা। ফলে টেস্টের মত ওয়ানডে সিরিজও ১-১ সমতায় শেষ হয়।
তবে টি-২০ সিরিজ জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। শ্রীলংকা সফরের শেষটা সাফল্য দিয়ে রাঙ্গাতে চাইবে টাইগাররা। যেমনটা শেষ মোকাবেলায় করেছিলো বাংলাদেশ। ২০১৬ সালে এশিয়া কাপের টি-২০ ম্যাচে শ্রীলংকাকে ২৩ রানে হারিয়ে প্রথম জয়ের স্বাদ পেয়েছিলো মাশরাফির দল। ওই জয়ের সুবাদে এশিয়া কাপের ফাইনালে খেলেছিলো বাংলাদেশ। অবশ্য আগের চার দেখাতে শ্রীলংকার কাছে হেরেছিল টাইগাররা।
অতীত স্মৃতির চেয়ে সাম্প্রতিক পারফরমেন্সে বেশ ভয়ংকর দল শ্রীলংকা। টি-২০ ফরম্যাটে সর্বশেষ দু’টি সিরিজই জিতেছে তারা। দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়া সফরে শক্তিশালী দুই দলের বিপক্ষে সিরিজ জিতে নেয় লংকানরা। তাই এই ফরম্যাটে বেশ এগিয়ে থেকেই বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলতে নামবে স্বাগতিক শ্রীলংকা।
তারপরও আত্মবিশ্বাসে টগবগ হয়ে খেলতে নামার ফুসরত আছে বাংলাদেশের। এই ভেন্যুতে শ্রীলংকার পারফরমেন্স মোটেও ভালো নয়। এখন পর্যন্ত আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ১১টি ম্যাচ খেলেছে শ্রীলংকা। জয় পেয়েছে মাত্র একটিতে। ২০১২ সালে টি-২০ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে পাকিস্তানকে ১৬ রানে হারায় লংকানরা। তাই শ্রীলংকার অপয়া ভেন্যুতে ম্যাচ জয়ের দারুন এক সুযোগ রয়েছে বাংলাদেশের। সিরিজ জয়ের সুযোগও থাকছে টাইগারদের। কারণ, সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টি-২০ ম্যাচও এই ভেন্যুতে।
বাংলাদেশ দল (সম্ভাব্য) : মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), সাকিব আল-হাসান (সহ-অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, ইমরুল কায়েস, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, মেহেদি হাসান মিরাজ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মুস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ, সানজামুল ইসলাম, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, নুরুল হাসান সোহান ও শুভাশিষ রায়।
শ্রীলংকা দল (সম্ভাব্য) : উপুল থারাঙ্গা (অধিনায়ক), দিলশান মুনাবিরা, কুসল জেনিথ পেরেরা, লাসিথ মালিঙ্গা, ইসুরু উদানা, নুয়ান কুলাসেকারা, দাসুন শানাকা, ভিকুম সঞ্জয়, মিলিন্দা সিরিবর্দেনে,আসেলা গুনারতে, সেক্কুজে প্রসন্ন. চাকমারা কাপুগেদারা, থিসারা পেরেরা, লক্ষন সান্দাকান, শেহান জয়সুরিয়া, দানুস্কা গুনাথিলাকা ।